গণধর্ষণের ভিডিও ভাইরাল করার হুমকি দেয়ায় স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা

 

পিরোজপুর প্রতিনিধি ঃঃ

পিরোজপুরেরর কাউখালীতে স্কুলছাত্রীকে গণধর্ষণ করেছে ৫ বখাটে। এরপর বখাটেরা ধর্ষণের দৃশ্য ভিডিও ধারণ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল করার হুমকি দেয় স্কুলছাত্রীকে। এতে অপমানে কিশোরী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। এ ঘটনায় কাউখালী থানায় আত্মহত্যায় প্ররোচনার মামলা হয়েছে। পুলিশ এক বখাটেকে আটক করেছে।

জানা গেছে, উপজেলার ছোট বিড়ালজুড়ি গ্রামে সেলিম হোসেনের স্কুল পড়ুয়া মেয়ে ও কাঠালিয়া স্কুল এন্ড কলেজের নবম শ্রেণির ছাত্রী সাদিয়া আক্তার (১৫)কে একই উপজেলার কাঁঠালিয়া গ্রামের তোফাজ্জেল খানের ছেলে সজীব খান (২৪), মোঃ জাকির হোসেন খান এর ছেলে মো. সাকিল (২৩) এবং হাবিব মীরের ছেলে মো. আকাশ মীর(২৪) সহ ৪-৫জন প্রায়ই কিশোরী মেয়েটিকে উত্ত্যক্ত করতো। এক পর্যায় গত ১৬ই জুলাই কিশোরী মেয়েটিকে মোবাইল ফোনে ডেকে এনে বখাটেরা স্থানীয় হাবিব মীরের একটি পরিত্যক্ত বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে বখাটেরা স্কুল ছাত্রীকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে এবং আপত্তিকর দৃশ্যগুলো মোবাইলে ভিডিও ধারণ করে। এরপর তারা আবারো ঐ স্কুল ছাত্রীকে কু-প্রস্তাব দেয় এবং ঐ ভিডিও ভাইরাল করার হুমকি প্রদর্শন করে। লোকলজ্জার ভয়ে ছাত্রীটি ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করে।

পুলিশ জানায়, এ ব্যাপারে মামলা হয়েছে। ইতিমধ্যে শাকিল নামে একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।