গহনা বিক্রি করতে না দেয়ায় স্ত্রীর কব্জি কাটলো স্বামী

 

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি ঃঃ

ব্যবসার জন্য স্ত্রীর গহনা বিক্রি করে টাকা নিতে চেয়েছিলেন শামীম মিয়া। কিন্তু স্ত্রী তাতে রাজি না হওয়ায় ঘটে বিপত্তি। এ নিয়ে বিবাদের একপর্যায়ে উত্তেজিত হয়ে স্ত্রীর হাতের কব্জি কেটে দেন শামীম। পরে গুরুতর অবস্থায় স্ত্রী ফাহিমা বেগম (২৩)কে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গতকাল সকালে হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার পিয়াইম গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ফাহিমার পরিবারের অভিযোগ, দুইবছর আগে শামীম মিয়ার সঙ্গে ফাহিমাকে বিয়ে দেয়া হয়। এরপর থেকেই শামীম ব্যবসা করবেন বলে তাকে টাকার জন্য চাপ দিতেন। একাধিকবার তারা টাকা দিলেও ফাহিমাকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করতো শামীম।

এ নিয়ে সামাজিকভাবে একাধিকবার বৈঠকও হয়েছে। সম্প্রতি ফাহিমার সোনার গহনা বিক্রি করে ব্যবসার জন্য টাকা দিতে চাপ দেন শামীম। কিন্তু ফাহিমা রাজি না হওয়ায় শামীম তাকে মারপিট করেন। একপর্যায়ে ঘরে থাকা ধারালো দা দিয়ে ফাহিমার হাতের কব্জি কেটে ফেলেন। পরে স্থানীয়রা তাকে সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করেন। এ ব্যাপারে মাধবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুর রাজ্জাক জানান, এ ঘটনায় এখনো পর্যন্ত কেউ থানায় অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।