চকরিয়ায় ইউপি চেয়ারম্যানের স্বাক্ষর জাল করে মৃত্যু সনদ তৈরির অভিযোগে আ’লীগ নেতাদের বিরুদ্ধে মামলা

 

কফিল উদ্দিন, চকরিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি ঃঃ
কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার সুরাজপুর-মানিকপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের স্বাক্ষর জাল করে মৃত্যু সনদ তৈরীর অভিযোগে স্থানীয় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আহবায়ক সহ ১০ জনের নাম উল্লেখ পূর্বক অজ্ঞাত আরো ৮/১০জনের বিরুদ্ধে চকরিয়ার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে মামলা (নং সিআর-১০১৫/২১) দায়ের করা হয়েছে।

ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আজিমুল হক আজিম বাদী ১২ সেপ্টেম্বর নালিশী এ মামলাটি করেন। আদালত তা আমলে নিয়ে সিআইডি কক্সবাজারকে তদন্তের নির্দেশ দেন। অভিযুক্তরা হলেন-,নুরুল কাদের, মো: আজিজ উল্লাহ, আবদু রাজ্জাক, জাফর আলম, হারুন রশিদ, মো: আবদুল্লাহ রায়হান, রুস্তম শাহরিয়ার, মো: আইয়ুব ও মো: রুবেলসহ অজ্ঞাত ৮/১০জন।

এ বিষয়ে পৌর শহরের চিরিঙ্গাস্থ চেয়ারম্যানের বাসভবনে দুপুরে এক সাংবাদিক সম্মেলনের আয়োজনও করেন। আজিমুল হক অভিযোগে জানিয়েছেন, তিনি ৩ মেয়াদে বিগত ১৮ বছর ধরে সুনামের সহিত চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করছেন। বিগত ৬মাস পূর্বে সুরাজপুরে প্রায় ১০০ একর সরকারি খাস জায়গায় কক্সবাজার জেলা ও উপজেলা প্রশাসন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অগ্রাধিকার প্রকল্প “নিভৃত নিসর্গ” পার্ক নামে পর্যটন স্পট স্থাপন করেন।

একই ভাবে ৪০শতক জমিতে ভূমিহীনদের জন্য আশ্রয়ন প্রকল্প ও গৃহনির্মাণ কাজ ইউএনও কর্তৃক চলমান রাখেন। তাতে ঈর্ষান্বিত হয়ে আসন্ন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র শুরু করেন। অভিযুক্তরা সুরাজপুর ভিলেজারপাড়া ইসলামিয়া হেফজখানা ও এতিমখানায় নিজ সন্তানদের পিতাকে মৃত সাজিয়ে চেয়ারম্যানের নামে স্কেনিং করে জাল মৃত্যু সনদ তৈরী করে ভর্তি দেখিয়ে এতিমের নামের সরকারি অর্থ (ক্য্যাপিটেশন) আত্মসাত করে তাকে ফাঁসানোর চেষ্টা চালাচ্ছে।

এসব জাল মৃত্যু সনদ বিগত ২০১৩ সন থেকে ২১সাল পর্যন্ত পরিষদের রেজিষ্ট্রার বহিতে লিপি নেই। তিনি এ জন্য আইনের আশ্রয় নিয়েছেন।