সিংগাইরের মান্নান ও শহীদ আত্মীয়র বাড়ি থেকে প্রাণে রক্ষা পেল যেভাবে ?

 

স্টাফ রিপোর্টার ঃঃ
সাভারে নাতনীকে দেখতে এসে জামাই ও তার পরিবারের লোকজন নির্যাতন চালালো নানা ও মামা শ্বশুরকে। এমনকি হত্যার পরিকল্পনা করেছিল নানা ও মামা শ্বশুরকে। এলাকাবাসী টের পেয়ে ৯৯৯ ফোন দিয়ে উদ্ধার করলো নানা ও মামা শ্বশুরকে। এ ঘটনায় সাভার মডেল থানা-পুলিশ ২ জনকে আটক করেছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আনুমানিক ১ বছর আগে মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলার ধল্লা ইউনিয়নের খাসেরচর গ্রামের মৃত আবুল হোসেনের কন্যা ছানিয়া আক্তারের সাথে সাভারের বনগাঁও ইউনিয়নের সাধাপুর কাজীপাড়া গ্রামের বসির মহাজনের বখাটে ছেলে আবুল কালামের সাথে বিয়ে হয়। পরে বিয়ের পরে গেল ১০ আগষ্ট মেয়ের নানা আব্দুল মান্নাান ও মামা শহিদ মোল্ল্যা ছানিয়া আক্তারকে দেখতে তার বাড়িতে আসলে পূর্ব শক্রুতার জের ধরে নানা ও মামাকে হাত বেধে ব্যাপক মারধর করেন মেয়ের জামাই আবুল কালাম ও আবুল কালামের বাবা বসির মহাজন।

তারা উভয়ের কাছ সাদা স্ট্যম্পে স্বাক্ষর নেয়। ছিনিয়ে নেয়া হয় তাদের ২টি মোবাইল ও সাড়ে ৪ হাজার টাকা। এরপর তাদের বাড়ির ছাদে নিয়ে যাওয়া হয় এবং দু’হাত বেঁধে নির্যাতন চালানো হয়। তাদের হত্যা করে লাশ গুম করার প্রাক্কালে প্রতিবেশীরা ৯৯৯-এ ফোন দিলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে তাদের উদ্ধার করে। পরে জামাই আবুল কালাম ও পিতা বশির মহাজনকে পুলিশ আটক করে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক, এলাকার একাধিক ব্যক্তি জানান,জামাই কালাম ও তার পিতা বশির মহাজন খারাপ লোক, এদের ভয়ে আমরা মুখ খুলতে পারি না।

এ বিষয়ে সাভার মডেল থানার ভবানীপুর পুলিশ ক্যাম্পের এস আই (উপ-পরিদর্শক) নাজিউর রহমান সাংবাদিকদের জানান,এ ব্যাপারে মামলা হয়েছে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবন্থা নেয়া হবে।