সিংগাইরে ঐতিহাসিক গোলাইডাঙ্গার যুদ্ধ নিয়ে মুক্তিযোদ্ধা কন্যার স্মৃতিচারণ

 

সংবাদ জমিন, অনলাইন ডেস্ক ঃঃ
আব্বুর সাথে গিয়েছিলাম আমাদের গ্রামের মুক্তিযুদ্ধের সেই জায়গা দেখতে যেখানে ১৯৭১ সালের ২৯ অক্টোবর এক রক্তক্ষয়ী সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে বাঙালী জাতি ছিনিয়ে এনেছিল স্বাধীনতার সেই কাঙ্খিত সূর্যকে।

আমার বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাঃ ওয়াজেদ আলী, ছাত্র জীবনে যুদ্ধ করেন। বাংলাদেশের স্বাধীনতার স্বপ্ন বাস্তবায়নের রুপকার বঙ্গবন্ধু ৭ ই মার্চ ১৯৭১ এ ঐতিহাসিক রেসকোর্স ময়দানে ডাকে সাড়া দিয়েই দেশের আপমর জনসাধারণ ঝাপিয়ে পরে মুক্তিযুদ্ধে ।

মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলার বলধার ইউনিয়নের গোলাইডাঙ্গা নামক স্থানে একটি সুপরিকল্পিত ফাঁদ পরিচালনা করা হয় । মুক্তিবাহিনীর সাথে পাক বাহিনীর সাথে তুমুল যুদ্ধ হয়। এতে ৮৩ জন পাক হানাদার ঘটনাস্থলে নিহত হয় । মানিকগঞ্জ মহকুমা প্রতিষ্ঠিত হয় ১৮৪৫ সালের মে মাসে । মানিকগঞ্জ মহকুমা প্রথমে ফরিদপুর জেলার ( ১৮১১ সালে সৃষ্ট ) অধীন ছিল । প্রশাসনিক জটিলতা নিরসনকল্পে ১৮৫৬ সালে মানিকগঞ্জ মহকুমাকে ফরিদপুর জেলা থেকে ঢাকা জেলায় অন্তর্ভূক্ত করা হয় । ০১ মার্চ ১৯৮৪ সালে মানিকগঞ্জ কে জেলায় উন্নীত করা হয় ।

জেলার পরিচিতি : মোট আয়তন ১৩,০৭৮.৯৯ বর্গ কিঃমিঃ ● মোট জনসংখ্যাঃ ১৪,৪৭,২৯৮ জন ● উপজেলাঃ ০৭টি ● শিক্ষার হারঃ ৫৬% ● উল্লেখযোগ্য যুদ্ধ : ৪২টি ● সর্বমোট মুক্তিযোদ্ধার সংখ্যা : আনুমানিক ৩,০০০ জন ●যন্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাঃ ১৭ জন ● শহীদ মুক্তিযোদ্ধাঃ ৫৪ জন।