সিংগাইরে জামশার বাস্তা গ্রামের লিটন হত্যার নেপথ্য কারণ

 

নিজস্ব প্রতিনিথি ঃঃ
মানিকগঞ্জের সিংগাইরেগোলাইডাঙ্গা এলাকায় লিটন নামে এক যুবককে হত্যা করা হয়েছে। শুক্রবার(৩ ডিসেম্বর) দুপুরে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, বাস্তা গ্রামের মৃত আহাম্মদ আলীর পুত্র ও নিহত লিটন(৩৬) এর বড় ভাই সুরুজকে ২২ নভেম্বর তুচ্ছ ঘটনার জের ধরে একই গ্রামের সমশের উদ্দিনের ছেলে গৈজদ্দিন মারধর করে। ২৫ নভেম্বর সালিশের নামে তাদের জড়ো করে গৈজদ্দিন গংরা ধারালো অস্ত্র ও লাঠি নিয়ে সুরুজ গংদের উপর হামলা চালায়। এতে সুরুজ, লিটন ও তাদের ভাগিনা গুরুতর আহত হয়। লোকজন তাদের উদ্ধার করে মানিকগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করে।

হাসপাতাল থেকে ফিরে বৃহস্পতিবার (২ ডিসেম্বর) সন্ধ্যার সময় লিটন নিজ বাড়ি থেকে বের হয়ে আর ঘরে ফিরে আসেনি। শুক্রবার(৪ নভেম্বর) সকালে লোকজন পার্শ্ববর্তী গোলাইডাঙ্গা ফাঁকা রাস্তার ভাঙ্গা ব্রীজের নিচে এক অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ দেখতে পেয়ে থানা-পুলিশকে খবর দেয়। এ সময় জনারণ্য হয়ে পড়ে ঐ এলাকা। পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, শত্রুতার জের ধরেই গৈজদ্দিন গংরা এ হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটিয়েছে।

এ ব্যাপারে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। তদন্ত কর্মকর্তা এসআই মনিরুজ্জামান জানান, লোকটিকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। জড়িতদের গ্রেফতারের জোর চেষ্টা চলছে।